শিরোনাম

শিশুকন্যাকে বাঁচিয়ে ‘হিরো’ হলেন পুলিশ সদস্য

ডেস্ক রিপোর্ট : অসাধারণ দক্ষতায় ১৪ মাস বয়সী এক শিশুকন্যার জীবন বাঁচিয়ে আলোচনায় উঠে এসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একজন পুলিশ কর্মকর্তা। তার অনন্য এ কাজের জন্য বহু মানুষ তাকে ‘নায়ক’ হিসেবে আখ্যায়িত করছেন। অ্যানা গ্রাহাম নামের এক নারীর ১৪ মাস বয়সী শিশুকন্যা লুসিয়া গ্রাহাম চিকেন নাগেট খাওয়ার সময় নাগেটের একটি বড় টুকরো তার গলায় আটকে যায়। এতে তার নিশ্বাস প্রায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছিল। তার চোখমুখ লাল হয়ে ওঠে। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই মা অ্যানা গ্রাহাম বিষয়টি বুঝতে পারেন এবং লুসিয়াকে উপুড় করে তার পিঠে চাপা দিয়ে গলায় আটকে থাকা নাগেটের অংশটি বের করার চেষ্টা করেন। কয়েক মিনিট চেষ্টা করলেও কোনো সুফল পাচ্ছিলেন না অ্যানা গ্রাহাম। এদিকে তার সন্তান তখনো ঠিকমতো নিশ্বাস নিতে পারছিল না।

পরে চিৎকার করে নিজের অসহায়ত্ব প্রকাশ করতে থাকেন তিনি। ঘটনাস্থলেই রবার্ট আলায়া এবং রাফায়েল গুয়াডালুপ নামের ফ্লোরিডা পুলিশের দু’জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। অ্যানার চিৎকার শুনে তারা সামনে এগিয়ে যান। ফ্লোরিডার পাম বিচ গার্ডেনের ভেতরের একটি সিকিউরিটি ক্যামেরায় পুরো ঘটনাটি রেকর্ড হয় এবং ৩ জুলাই এই ঘটনার ফুটেজ প্রকাশ করা হয়। অ্যানা বলেন, ‘অফিসার আলায়া এগিয়ে আসেন। আমার সন্তানকে তার হাতে তুলে দেই। তিনি বসে যান এবং খুব দ্রুত তার করণীয় কাজটি করতে থাকেন, যাতে আমার সন্তান ঠিকমতো নিশ্বাস নিতে পারে। সে তখন আতঙ্কগ্রস্ত অবস্থায় মেঝেতে বসেছিল। প্রকাশিত ফুটেজে দেখা যায়, আলায়া শিশুটির চেহারা নিচের দিকে রেখে পিঠে অনবরত চাপ দিতে থাকেন। কিন্তু তাতেও কাজ না হওয়ায় তিনি আরও জোরে জোরে চাপ দিতে থাকেন। একপর্যায়ে নাগেটের অংশটি তার মুখ থেকে বের হয়ে আসে। পুলিশ সদস্য রবার্ট আলায়া বলেন, এমন পরিস্থিতির বিষয়ে তার প্রশিক্ষণ নেওয়া ছিল। তিনি তার সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েই শিশুটিকে রক্ষা করতে পেরেছেন।

(Visited 55 times, 1 visits today)

About The Author

মোহাসিন সাইদ ঢাকা প্রতিনিধি

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE YOUR COMMENT

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অ্যাবাউটবিজ্ঞাপনযোগাযোগ শর্ত ও নিয়মাবলী