শিরোনাম

শেরপুরে সন্ত্রাস দমন মামলায় জেএমবির ৬ সদস্যের সাজা

শেরপুর প্রতিনিধিঃ শেরপুরে সন্ত্রাস দমন আইন মামলায় ৬ জেএমবি সদস্যকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ দুপুরে শেরপুরের স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক (সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ) এম. এ নূর জনাকীর্ণ আদালতে ওই রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ২ জনকে ২০০৮ সালের সন্ত্রাসবিরোধী অধ্যাদেশের ৮ ধারায় ৭ বছর ও ৯ ধারায় উভয়কে ৬ বছরসহ ১৩ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড সহ অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া মামলার অপর ৪ আসামীকে একই আইনের ৯ ধারায় ৫ বছর এবং ১২ ধারায় ৬ মাসসহ সাড়ে ৫ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেওয়া হয়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ২২ জানুয়ারি নিষিদ্ধ সংগঠন জেএমবির প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সদস্য শেরপুর শহরের ঢাকলহাটী মহল্লার রাজা মিয়ার ছেলে নাজমুস শাহাদাত রানার বাসায় অভিযান চালিয়ে রানা ও তার সহযোগী মনিরুজ্জামান মানিক ওরফে কাওসারকে আটক করে পুলিশ। ওই সময় ওই বাসায় তল্লাসী চালিয়ে ১৭টি জিহাদি দাওয়াতপত্র ও বেশ কিছু সিডি-ক্যাসেটসহ নিষিদ্ধ সংগঠনের আলামত উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় শেরপুর সদর থানার তৎকালীন এএসআই সজীব খান বাদী হয়ে নাজমুস শাহাদাত রানা ও কাওসারসহ ৭ জনকে স্বনামে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৫০/৬০ জনকে আসামী করে ২০০৮ সালের সন্ত্রাসবিরোধী অধ্যাদেশের ৮/৯ ধারায় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তীতে আসামীরা বিভিন্ন পর্যায়ে আদালত থেকে জামিনে বেরিয়ে যায় এবং এক পর্যায়ে আবুল কালাম আজাদ নামে এক আসামী মৃত্যুবরণ করে। চলতি বছরের ২৩মে ওই মামলায় ৬ আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। ১৮ জুন রাষ্ট্র ও আসামী পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে উপস্থিত ৫ আসামীর জামিন বাতিল এবং অপর আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানার আদেশ দেওয়া হয়। এদিকে চাঞ্চল্যকর ওই মামলার রায়কে ঘিরে সকাল থেকেই আদালত অঙ্গনে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। আসামীদের বিশেষ নিরাপত্তায় জেলা কারাগার থেকে আদালতে আনাসহ সাজার পর একইভাবে পাঠানো হয় কারাগারে।

(Visited 43 times, 1 visits today)

About The Author

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE YOUR COMMENT

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অ্যাবাউটবিজ্ঞাপনযোগাযোগ শর্ত ও নিয়মাবলী