শিরোনাম

সামর্থ্যবানদের জীবনে অন্তত একবার হজ পালন ফরজ

ডেস্ক রিপোর্ট: ইসলাম ধর্মের রীতি অনুযায়ী, সামর্থ্যবানদের জীবনে অন্তত একবার হজ পালন ফরজ। প্রতি বছর বিশ্বের লাখ লাখ  মানুষ ৬ দিনের জন্য হজ পালনে মক্কা সফর করেন। হিজরি ক্যালেন্ডারের ১২তম মাস জিলহজেরর অষ্টম থেকে ১৩তম দিনে হজ অনুষ্ঠিত হয়। ইসলাম ধর্ম অনুসারে কাবাকে সবচেয়ে পবিত্রতম স্থান মনে করা হয়। কাবা মুসলমানদের কিবলা। অর্থ্যাৎ কাবার দিকে মুখ করে মুসলিমরা তাদের নামাজ আদায় করেন। হজ এবং উমরাহ পালনের সময় মুসলিমরা কাবাকে ঘিরে তাওয়াফ করেন। কিন্তু হজ পালনে বেশ কিছু ধাপ অনুসরণ করে হজ পালন করা হয়।

হজের ধর্মীয় আচার শুরু হয় ইহরামের মাধ্যমে। ইহরাম শব্দটি হারাম থেকে এসেছে; যার অর্থ কোনো কিছু নিষিদ্ধ করে নেয়া। হজ ও উমরাহ পালনকারী ব্যক্তি ইহরামের মাধ্যমে স্ত্রী সহবাস, মাথার চুল, হাতের নখ, গোঁফ, সুগন্ধি ব্যবহার, সেলাই করা পোশাক পরিধান এবং শিকার করাসহ কিছু বিষয়কে হারাম করে নেয়। 

ইহরামের পর হজ পালনকারীরা মক্কা থেকে মিনার দিকে যাত্রা শুরু করেন। মক্কা থেকে মিনার দূরত্ব প্রায় ৮ কিলোমিটার। হজ পালনকারীদের জন্য মিনায় অবস্থান করা সুন্নত। পরবর্তী দিন না আসা পর্যন্ত মিনাতে অবস্থান করতে হয়। মিনাতে হজ পালনকারীরা অধিকাংশ সময় নামাজ আদায় ও মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহকে স্মরণ করেন।

হজ পালনকারীদের জন্য আরাফাতে অবস্থান ফরজ কাজ। হজের আনুষ্ঠানিকতার জন্য মিনা থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে আরাফাতের উদ্দেশে যাত্রা করতে হয়। মূলত ৯ জিলহজ আরাফাতের ময়দানে অবস্থান করাই হজ। এসময় আরাফাতের ময়দান হজ পালনকারীদের কণ্ঠে ‘লাব্বাইকা আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে মুখরিত থাকে।

এরপর মুযদালিফাহতে পাথর সংগ্রহে সন্ধ্যায় আরাফাত থেকে মুযদালিফায় রওয়ানা করেন হজ পালনকারীরা। সেখানে তারা রাত্রিযাপন করেন। মিনার শয়তানকে পাথর ছুড়ে মারার জন্য মুযদালিফাহ থেকে পাথর সংগ্রহ করতে হয়।

শয়তানকে লক্ষ্য করে পাথর ছুড়ে মারা হজের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ১০ জিলহজে শুধু বড় জামরায় পাথর নিক্ষেপ এবং ১১ ও ১২ জিলহজে ছোট, মধ্যম ও বড় এই তিন জামরাতেই পাথর মারা ওয়াজিব। ১০ জিলহজে সারাবিশ্বে ঈদুল-আজহা পালিত হয়। শয়তানকে পাথর ছুড়ে মারার এ কাজ মূলত প্রতীকি।

মিনাতে শেষ দিনেও শয়তানকে লক্ষ্য করে পাথর নিক্ষেপ করেন হজ পালনকারীরা। মিনাতে অবস্থান করতে হয় ২ থেকে ৩ দিন । মিনাতে অবস্থানের সময় শেষ হলে আবার মক্কার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করতে হয়। মিনা থেকে মক্কায় গিয়ে হজ পালনকারীরা চূড়ান্ত তাওয়াফ করেন।  

(Visited 78 times, 1 visits today)

About The Author

মোহাসিন সাইদ ঢাকা প্রতিনিধি

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE YOUR COMMENT

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অ্যাবাউটবিজ্ঞাপনযোগাযোগ শর্ত ও নিয়মাবলী