খেলাধুলা: অর্থনৈতিক ও কাঠামোগত বাঁধা’র কারণে নতুন চুক্তি সম্পাদন না হওয়ায় দীর্ঘ ২০ বছর পর বার্সেলোনা ছাড়তে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন সুপার স্টার লিওনেল মেসি।

সর্বকালের সেরা খেলোয়াড়দের আসনে থাকা মেসির বার্সা ছাড়ার এই খবরে তাকে পেতে হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন ইউরোপের নামী দামী ক্লাবগুলো। এদের অগ্রভাগে আছে প্য্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি) ও ম্যানচেস্টার সিটি।

বার্সেলোনার হয়ে রেকর্ড ৭৮৮টি ম্যাচে অংশ নিয়েছেন মেসি। আর স্পেনে বর্নিল ক্যারিয়ারে তিনি জয় করেছেন ৩৫টি ট্রফি। ছয়বারের ব্যালন ডি’অর খেতাব জয়ী এই ফুটবল তারকা বার্সেলোনাতেই থেকে যাবেন বলে ধারনা করা হচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দুই পক্ষের আলোচনা ভেঙ্গে যায়।

বার্সার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুই পক্ষের ইচ্ছে থাকা স্বত্বেও বার্সায় থাকা হচ্ছে না মেসির। কারণ অর্থনৈতিক ও স্প্যানিশ লিগ কর্তৃপক্ষের কাঠামোগত বাধা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী মেসি আর এফসি বার্সেলোনায় থাকছেন না। দুই পক্ষেরই মধ্যে তীব্র আকাঙ্খা থাকার পরও চুক্তি করা সম্ভব হচ্ছে না। দলের জন্য অবদান রাখায় কর্তৃপক্ষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে মেসির প্রতি। পাশাপাশি তার ব্যক্তিগত ও পেশাদার জীবনের জন্য সাফল্য কামনা করছে।

এদিকে মেসির এই বিদায়ে মুষড়ে পড়েছেন তার সমর্থকেরা। কাতালান ক্লাবটির ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ এই ফুটবলারকে আর বার্সার জার্সিতে দেখা যাবে না- এটা যেন তারা মানতেই পারছেন না। গতকাল রাতে বার্সার আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পর থেকেই মেসিভক্তরা ক্যাম্প ন্যুয়ের সামনে ভিড় করেন। অনেকে ক্লাব ও লা লিগার প্রতি ক্ষোভ প্রদর্শন করেন। আবার অনেকে অঝোরে কাঁদছিলেন। বেশিরভাগই মনে করছিলেন; এটাও হয়তো গত বছরের মতো মিথ্যা হয়ে যাবে। কিন্তু না, মেসির বার্সা ত্যাগ এখন নির্মম সত্যি।

সূত্র: বাসস

আরও সংবাদ

Write a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *